ছোট বোনের পরীক্ষা দিতে গিয়ে মেয়ে সেজে ধরা পরলো বড় ভাই

একবার দাখিল পরীক্ষায় অকৃতকার্য হয়েছিল এই কারণে ছোট বোন আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলো । তাই যদি দ্বিতীয় বার পরীক্ষায় ছোট বোন অকৃতকার্য হয় তাহলে তো ছোট বোন আবারো আত্মহত্যা করতে পারে ।সেই আতঙ্কে বা ভয়ে ছোট বোন এর বোরকা পরে পরীক্ষা দিতে গিয়েছেন বড় ভাই । দাখিল পরীক্ষায় বোনের হয়ে বোরকা পরীক্ষা দিতে গিয়ে বড় ভাই মোহাম্মদ ইব্রাহিম (১৯) হাতেনাতে ধরা পড়েছে সেই হলের কর্মরত পরিদর্শকের হাতে।

জানা যায়, আরবি দ্বিতীয় পত্র পরীক্ষায় ইব্রাহিম বোরকা পরে কেন্দ্রে পরীক্ষা দিতে যান। কিন্তু তার চালচলন কিছুটা ব্যতিক্রম হওয়ার কারণে সন্দেহ হওয়ায় হলের দায়িত্বরত শিক্ষকের নজরে আসে এই বিষয়টি । এ সময় তাকে চ্যালেঞ্জ করে কেন্দ্রের পরিদর্শক উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ ইলিয়াস উক্ত মাদরাসা অধ্যক্ষের রুমে নিয়ে আসা হয়। তার পরিহিত বোরকা খুলে দেখেন বোরকার আড়ালে সে একজন ছেলে।

সঙ্গে সঙ্গে মো. আলাউদ্দিন ভূঞা জনী জানানো হয় । তিনি পাটিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা । অবগত করা মাত্র তিনি ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন।

পটিয়া শাহচান্দ আউলিয়া কামিল মাদরাসার দাখিল পরীক্ষা কেন্দ্রে এই চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে ২০ শে ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার। । এই অপরাধের জন্য তাকে আইনের দ্বারস্থ করা হয়।এ সময় তাকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের আয়ত্তে নেওয়া হলে ভ্রাম্যমান আদালত ইব্রাহিম কে ৭ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদানের আদেশ দেন।

এরপর পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়। কারণ ভ্রাম্যমাণ আদালতের কাছে সকল দোষ স্বীকার করে আব্রাহিম । তার সকল দোষ বিবেচনা করে তাকে ৭ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করে

মাদরাসাটির কেন্দ্র পরিদর্শক ডা. মোহাম্মদ ইলিয়াস বলেন, দাখিল পরীক্ষায় আরবি দ্বিতীয় পত্রের পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে বোরকা পরিহিত এক শিক্ষার্থীকে তার বেশভূষা দেখে কিছুটা সন্দেহ মনে হলে তখন আমরা ওই শিক্ষার্থীর চেহারা দেখাতে বলি।

কিন্তু সে তার চেহারা দেখাতেও রাজি হননি। এমনকি কারো সঙ্গে কথা না বলে চুপচাপ বসে থাকে । একপর্যায়ে বাধ্য হয়ে আমরা তাকে হল রুম থেকে বের করে মাদ্রাসার অধ্যক্ষের রুমে নিয়ে মুখ থেকে বোরকা সরিয়ে দেখলে দেখা যায় বোরকার আড়াল সে একজন ছেলে।

এই অবস্থায় ইব্রাহিম বলেন, দাখিল পরীক্ষায় তিনি নিজে পরীক্ষা কেন্দ্রে পরীক্ষা দিতে এসেছেন ছোট বোনকে পাশ করানোর আশায় । গত বছর দাখিল পরীক্ষায় ফেল করাই আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিল আমার ছোট বোন। দ্বিতীয়বার ও পরীক্ষায় যদি বোন আবারো ফেল করে তাহলে সে হয়তো আত্মহত্যা করতে পারে ‌,এমন ভয়ে বোনকে বাঁচাতে অভিনবত্বের পথ বেঁচে নেন তিনি।

দেশ বিদেশের শিক্ষা, পড়ালেখা, ক্যারিয়ার এবং শিক্ষা সংশ্লিষ্ট সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম, ছবি, ভিডিও প্রতিবেদন সবার আগে দেখতে পেজে লাইক দিয়ে চোখ রাখুন

Leave a Comment