দায়িত্বশীল সরকার কী?

দায়িত্বশীল সরকার কাকে বলে?

উত্তর, ভূমিকা: দায়িত্বশীল সরকার পদবাচ্যটি বর্তমানে প্রায় সকলের কাছে কমবেশি পরিচিত। ভারতবর্ষের জনগণ দীর্ঘদিন থেকে দায়িত্বশীল সরকার প্রতিষ্ঠার দাবি করেছিল। অবশেষে ১৯১৭ সালের ২০ আগসডিংকারতবর্ষের জচিব ব্রিটিশ ভারতে প্রথম দায়িত্বশীল সরকার প্রতিষ্ঠার ঘোষণা দেন কমন্সসভায়। তার বক্তব্যের প্রেক্ষিতে সালীন জারের সারিত শাসন আইনের দ্বারা প্রাদেশিক প্রশাসনে দ্বৈতশাসন প্রতিষ্ঠা করা হলেও প্রকৃতপক্ষে দায়িত্বশীল সরকার প্রতিষ্ঠা দেয় নি। তাই ১৯৩৫ সালের ভারত শাসন আইনে ব্রিটিশ ভারতের কেন্দ্র ও প্রদেশে দায়িত্বশীল শাসনব্যবস্থা প্রবর্তনের পদক্ষেপ গৃহীত হয়। দায়িত্বশীল সরকার ব্যবস্থা: দায়িত্বশীল সরকার বলতে সাধারণত সে সরকার ব্যবস্থা বুঝায় যে সরকার তারনীতি ও কার্যাবলির জন্য প্রত্যক্ষভাবে দেশের আইনসভার কাছে দায়ী থাকেন। সরকারের শাসন সংক্রান্ত সমুদয় ক্ষমতা মন্ত্রিসভার হাতে ন্যস্ত থাকে। রাষ্ট্রপ্রধান হলো একজন নামমাত্র শাসক এবং তিনি সর্বাবস্থায় প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শ মোতাবেক স্বীয় দায়িত্ব পালন করেন। একটি নির্বাচিত আইনসভা মন্ত্রিসভাকে নিয়ন্ত্রণ করে। এককথায় দায়িত্বশীল সরকার হচ্ছে সে সরকার, যে সরকার জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে পরোক্ষভাবে জনগণের কাছে দায়ী থাকেন।১৯৩৫ সালের ভারত শাসন আইনে ব্রিটিশ ভারতের কেন্দ্রীয় এবং প্রাদেশিক প্রশাসনে তত্ত্বগতভাবে সীমিত আকারে দায়িত্বশীল সরকার প্রতিষ্ঠা করা হয়েছিল। কিন্তু বাস্তবে এ সরকার দায়িত্বশীল ছিল কি না?উপসংহার: অতএব বলা যায় যে, দ্বায়িত্বশীল সরকার ব্যবস্থা হলো এমন এক ধরনের সরকার যেখানে আইন সভার সদস্যরা তাদের কাজের জন্য যৌথভাবে আইন সভা ও জনগণের নিকট দায়ী থাকেন। ১৯৩৫ সালের আইনের মাধ্যমে প্রথম দায়িত্বশীল সরকার প্রতিষ্ঠা ছিল ভারতীয় শাসনতান্ত্রিক ইতিহাসে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

Leave a Comment