প্রাথমিকে চূড়ান্তভাবে উত্তীর্ণ হয়েও চাকরি বঞ্চিতদের সুখবর আপডেট

প্রাথমিকে চূড়ান্তভাবে উত্তীর্ণ হয়েও চাকরি বঞ্চিতদের সুখবর
আপডেট


চাকরি বঞ্চিতদের জন্য একটি সুখবর নিয়ে এসেছে প্রাথমিক শিক্ষা বোর্ড। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় চূড়ান্তভাবে উত্তীর্ণ হয়েও যারা নিয়োগ পাবেন না তাদের অপেক্ষামান তালিকায় রাখা হচ্ছে। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর জানিয়েছেন যে পরবর্তীতে শূন্য পদে তথ্য পাওয়া সাপেক্ষে এই তালিকা থেকে নিয়োগ দেয়া হবে।
তারা আরো জানিয়েছেন যে রাত দশ হাজার সহকারী শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে ধাপে ধাপে প্রথম দ্বিতীয় ও তৃতীয় ধাপে এগুলো নিয়োগ দেওয়া হবে। ১:৪ ফরম্যাটে
প্রার্থীদের উত্তীর্ণ করানো হতে পারে প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক পদের বিপরীতে।
পরবর্তীতে কোন বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হলেই মেধা তালিকা অনুযায়ী প্রাপ্ত নম্বর অনুযায়ী তাদের নিয়োগ করা হবে এবং যারা অপেক্ষমান তালিকায় রাখা হবে তাদের ক্ষেত্রে এটি প্রযোজ্য।
এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে গণশিক্ষা ও প্রাথমিক মন্ত্রণালয়ের সচিব ফরিদ আহমেদ গণমাধ্যমকে অবগত করেন যে প্রাথমিকের চলমান নিয়োগ পরীক্ষায় যারা চূড়ান্তভাবে উত্তীর্ণ করা হবে তাদের মধ্য থেকে পরবর্তীতে শূন্য পদ পাওয়া সাপেক্ষে নিয়োগ কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে।
বর্তমানে সারাদেশে সরকারি প্রাথমিক বিষয়গুলোতে 10000 পথ শূন্য রয়েছেন এটি জানিয়েছেন প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের একটি সূত্র।
এবং এই পথগুলোতে অপেক্ষা আমান তালিকা থেকে নিয়োগ দেয়া হবে না। তবে কেউ যদি নিয়োগ পাই এবং সেটা পাওয়ার পর যোগদান যদি সে না করে ওই পদে অপেক্ষমান তালিকা থেকে মিয়াজ দেয়া হতে পারে তাকে।
আরো জানা যায় যে এবারই প্রথম আবেদন ও নিয়োগ পরীক্ষা ধাপে ধাপে নেওয়া হচ্ছে প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগের কার্যক্রম ধরতেও শেষ করতে হবে এই কারণেই। এবং এই নিয়োগে তিনটি ধাপে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে পরীক্ষা আলাদাভাবে নেওয়া হচ্ছে এবং হবে।
প্রথম পর্যায়ে বাধাপে সিলেট রংপুর বরিশাল বিভাগের গত ৮০ ডিসেম্বর 18 টি জেলায় তিন বিভাগের mcq পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছিল এতে পরীক্ষার্থী ছিলেন তিন লাখ ৭ হাজার ৬৫৭ জন শিক্ষার্থীর লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয় ৩৩৭ জন। এসব প্রার্থী পরে মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন।

সহকারী শিক্ষক নিয়োগের দ্বিতীয় ধাপে রাজশাহী ময়মনসিংহ খুলনা বিভাগে লিখিত পরীক্ষার 2 ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হয়েছিল তিনটি বিভাগে ১৮ টি জেলায় সকাল দশটা থেকে বেলা ১১ টা পর্যন্ত এমসিকিউ পরীক্ষা হয় এক ঘন্টার মধ্যেই তৃতীয় ধাপের mcq পরীক্ষার প্রকাশিত হয়েছিল তৃতীয় ধাপে ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

শিক্ষা প্রযুক্তি ও দেশ-বিদেশের নানা রকম খবর পেতে ভিজিট করুন কলেজ টুনিভার্সিটির ওয়েবসাইটে।

Leave a Comment