রমজানের সুস্থ থাকতে মেনে চলুন এই সাতটি নিয়ম

রমজানের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে চাইলে লিভার কিডনি ভালো রাখতে চাইলে এবং যাদের গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা আছে ঔষধ ছাড়া গ্যাস্ট্রিক থেকে মুক্তি পেতে মেনে চলুন সাতটি নিয়ম। রমজানের দীর্ঘ সময় রোজা রাখার ফলে আমরা ইফতারের বিভিন্ন রকমের মসলাদার খাবার খাই। এবং বিভিন্ন ধরনের তৈলাক্ত ও চর্বিযুক্ত খাবার খেয়ে থাকে যা আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। বিভিন্ন সময় না খেয়ে থাকার কারণে আমাদের শরীরের খাদ্যের চাহিদা মেটাতে আমরা অনেক রকমের খাবার খাই। বেশি ফাস্টফুড তৈলাক্ত জাতীয় খাবার খায় এতে গ্যাস থেকে সমস্যা বেড়ে যায়। এই লেখাতে কয়েকটি নিয়ম শিখিয়ে দেব যেটার মাধ্যমে ইফতার ও সেহরির সময় যদি এসব নিয়ম মেনে চলেন আপনারা সুস্থ থাকতে পারবেন। শুধু তাই নয় এই নিয়মগুলো যদি রমজান মাসে আপনারা মেনে চলেন তাহলে সারা মাস ধরে আপনারা সুস্থ থাকবেন।প্রথম যে গুরুত্বপূর্ণ নিয়ম সেটা হচ্ছে রমজান মে রোজা রাখার পর ইফতার অবশ্যই খেজুর দেয়া শুরু করবেন। এবং খেজুর দিয়ে ইফতার করার পর অল্প পরিমাণ স্বাভাবিক ঠান্ডা পানি খাবেন। বেশি ঠান্ডা পানি না খেয়ে কুসুম গরম পানিতে হাফ চামচ লেবু মিশিয়ে যদি খেতে পারেন সে ক্ষেত্রে আপনার উপকার হবে। কারণ লেবুতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি থাকলে লেবু হজম শক্তিতে বৃদ্ধি করে। এবং দূষিত পদার্থ শরীর থেকে বের করতে সাহায্য করে।দুই নম্বর নিয়মটি হচ্ছে যখন ইফতার করবেন বাদ সেহরি করবেন তখন খাবারটি ধীরে ধীরে চাবিয়ে খান ধীরে ধীরে চিবিয়ে খেলে আপনার হজম শক্তি বৃদ্ধি করবে। এবং আপনাকে সকল প্রকারের গ্যাস্টিকের ব্যথা থেকে মুক্ত করবে। সেহরিতে অবশ্যই সময় নিয়ে সেহরি খাবেন। অনেকেই দেখা যায় তাড়াহুড়ো করেছে খেতে গিয়ে খাবার গলায় আটকে ফেলেন কিংবা খেয়ে শুয়ে পড়েন এতে আপনাদের হজম শক্তি দুর্বল হতে পারে সুতরাং সেহরিতে ধীরে সুস্থে খাবার খেয়ে একটু হাঁটবেন।আর যুক্ত পুষ্টিকর এবং চরবিহীন খাবার ইফতারিতে অবশ্যই খাবেন। এবং ইফতারি এবং সেহরিতে পুষ্টিকর এবং ভিটামিন যুক্ত খাবার রাখবেন।সেহরিতে অবশ্যই টক দই রাখবেন শাক-সবজি এবং ফলমূল বেশি করে রাখবেন। এই খাদ্যগুলো আপনার দ্রুত হজম হবে এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াবে।ছোলা সিদ্ধ করে খাবেন। তেল মসলা না দিয়ে হালকা সালাদ মিশিয়ে যদি ছোলা খান এতে আপনার শরীরের উপকার হবে। এবং শক্তি বৃদ্ধিতে সহায়ক হবে। এবং ইফতারি এবং সেহরিতে বেশি বেশি তরল জাতীয় খাবার খাবেন অ্যালকোহল মুক্ত থাকবেন চেষ্টা করবেন বেশি বেশি পানি পান করা র এই কয়েকটি নিয়ম পালন করলে অবশ্যই সুস্থ থাকতে পারবেন।এরকম আরো তথ্য পেতে যুক্ত থাকুন কলেজ টু ইউনিভার্সিটি পেজে

Leave a Comment