রোজা-রমজানের দিনে প্রকাশ্যে পান খাওয়ার অপরাধে বেধড়ক মারপিট করেছেন পাতাকুড়ানি প্রতিভা রাণী কে

রোজা-রমজানের দিনে প্রকাশ্যে খাওয়ার পান অপরাধে বেধড়ক মারপিট করেছেন পাতাকুড়ানি প্রতিভা রাণী কে ।চাঁদপুরের হাজীগঞ্জের বড়কুল ইউনিয়নের নাটেহরা গ্রামের বাগানে পাতা কুড়াতে কুড়াতে পান খাচ্ছিলেন প্রতিভা রানী! আর এই পান খাওয়ার অপরাধে নাটেহরা গ্রামের মোহাম্মদ কলিমুদ্দিন গাজীর গুণধর পুত্র নুরুল আমিন বাঁশের লাঠি দিয়ে পিটিয়ে শায়েস্তা করেছেন প্রতিভা রানীকে! ঘটনাটি ঘটেছে চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে নুরুল আমিন ছিল একজন স্কুল শিক্ষক।তথ্যসূত্রে জানা যায়, অভিযুক্ত নুরুল আমিনের বাড়ির কাছে পাতা কুড়াতে যায় প্রতিভা রানী। তখন নুরুল আমিনের স্ত্রী তার ঘরের কাজ করার জন্য বললে প্রতিভা রানী এতে সম্মত হন। পরে ঘরের কাজের এক পর্যায়ে নুরুল আমিনের স্ত্রী প্রতিভাকে পান খেতে দেন।আর তখনই প্রতিভা রানী নুরুল আমিনের সামনে পান খাই আর সেটা দেখে নুরুল আমিন তাকে গালমন্দ করে, এবং বাঁশের লাঠি দিয়ে তাকে অমানবিকভাবে পুরো শরীরে আঘাত করে এবং গলায় পা দিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা চালায়।এই ন্যক্কারজনক কাজ করায় তাকে দ্রুত আইনের আওতায় আমার দাবি করেছেন অনেকে ই।ধর্ম যার তিনি মান্য করুন। অন্য ধর্মের মানুষের সাথে অন্যায় করা খুবই ন্যাক্কারজনক বিষয় ও ধিক্কার জানাই। এ ঘটনায় অনেকে নারীকে কতটুকু সম্মান করে এরা। প্রতিভা রাণী বয়স্ক এক নারী। রমজানে প্রকাশ্যে পান খাবার অপরাধে বাঁশের লাঠি দিয়ে বেধড়ক পিটিয়েছে নুরুল আমিন। গত ১৯ মার্চ দুপুরে চাঁদপুরের হাজীগঞ্জের ৭নং বড়কুল ইউনিয়নের নাটেহরা গ্রামের ঘটনা। বাগানে পাতা কুড়াতে গিয়ে পান খাচ্ছিলেন প্রতিভা, ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে চাঁদপুরের গ্রামের মোহাম্মদ কলিমুদ্দিন গাজীর ছেলে নুরুল আমিন। মারধরের সময় অকথ্য ভাষায় গালি গালাজ করে, কোথায় যাবে প্রতিভা রাণী ! প্রতিভা রানীর চিৎকারে আশে পাশের মানুষ মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে হাজীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে প্রতিমা’র শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে নিয়ে যাওয়া হয় চাঁদপুর হাসপাতালে। এখনো তিনি চিকিৎসাধীন।ধর্মের নামে এসব পাশবিকতা কবে বন্ধ হবে বাংলাদেশে কেউ বলতে পারে না। সাম্প্রদায়িক হামলা দিন দিন বেড়েই চলেছে। অভিজ্ঞ মহল বলছেন এটাই এখন বাংলাদেশের নিত্যকার চিত্র।

Leave a Comment