সার্বজনীন পেনশনে বাধ্যতামূলক করা হচ্ছে সরকারি চাকরিজীবীদের।

সার্বজনীন পেনশনে বাধ্যতামূলক করা হচ্ছে সরকারি চাকরিজীবীদের।

সার্বজনীন পেনশনে বাধ্যতামূলক করা হচ্ছে সকল স্বায়ত্তশাসিত সংবিধিবদ্ধ ও সমজাতীয় সংস্থা এবং তাদের অধীনস্থ অঙ্গ প্রতিষ্ঠানগুলোর কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের।

আগামী ১ জুলাই বা তার পরবর্তী সময় থেকে বাধ্যতামূলক করা হয়েছে যারা চাকরিতে যোগদান করবে তাদের। এ তথ্য জানানো হয় গত বুধবার অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে। এবং একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের অবতী করেন যে আগামী ১৩ই মার্চ ২০২৪ সালের সরকারের জারিকিত এসআর নম্বর 47 আইন অনুযায়ী সকল সরকারি চাকরিজীবীদের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের এক জুলাই ও পরবর্তী সময়ে নতুন যোগদান করবেন যারা তাদের সার্বজনীন পেনশনের ব্যবস্থাপনা করা হবে এবং এটি ব্যবস্থাপনা আইনের অন্তর্ভুক্ত।

তবে যাদের 10 বছর চারটি অবশিষ্ট আছেন ন্যূনতম তারা যদি এ ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করে তারা এই স্কিমে অংশগ্রহণ করতে পারবেন ।

এ ব্যাপারে মন্ত্রণালয় জানাই এ ব্যবস্থায় খুব কম সংখ্যক প্রতিষ্ঠানগুলো পেনশন স্কিম চালু রয়েছে। এবং এ ব্যবস্থায় কর্মচারীরা যদি তাদের চাকরি শেষে করে অবসর গ্রহণ করে এবং সেই সুবিধা হিসেবে এককালীন অনতসিক প্রাপ্য হন কিন্তু মাসিক কোন পেনশন প্রাপ্য হন না এই কারণে অবসরের পর আর্থিক অনিশ্চয়তার সম্মুখীন হন অনেকেই এবং এই কারণে কর্মচারীদের আর্থিক ও সামাজিক সুরক্ষা দিতে এই ব্যবস্থার বিকল্প হিসেবে সরকার প্রত্যয় স্কিন প্রবর্তন করেন।

সরকারকে নির্বাহ করতে হবে জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষের যাবতীয় খরচ এবং এটা হবে বিধায় যারা দাতার কর্পাস থেকে হিসাবে জমাকৃত অর্থ বিনিয়োগ লব্ধ আয় সম্পন্ন মাধ্যমে মাসিক টেনশন নির্ধারিত হবে। এবং প্রাপ্য পেনশন আয়কর মুক্ত হবে। এবং এই ইস্কমে নিবন্ধিত করতে হবে কর্মচারীদের এবং কর্মচারীরা পেনশনযোগ্য বয়সে উপনীত হওয়ার পরে পরবর্তী মাস থেকে সংক্ষেপ হবে তাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে মাসিক পেনশনের অর্থ ঢুকতে থাকবে যা তাকে মোবাইলে এসএমএসের মাধ্যমে জানিয়ে দেয়া হবে। কোন প্রকার প্রমাণ দাখিলের প্রয়োজন হবে না। নতুন কর্মচারী ও কর্মকর্তাদের জন্য আকর্ষণীয় আর্থিক নিরাপত্তা আনবিধানে কার্যকর হবে এই প্রত্যয় স্কিম টি।

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় কর্মচারীদের মূল বেতনের ১০ শতাংশ এবং প্রতিষ্ঠানের মূল বেতনের ৮.৩৩ শতাংশ স্ক্রিনে প্রতিষ্ঠান প্রদান করবে। এবং এই স্কিনে একজন ব্যক্তি প্রতিষ্ঠানের যোগদান করার পর মাসিক ২৫০০ টাকায় নিজ বেতন থেকে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান থেকে একই পরিমাণ টাকা 30 বছর চাঁদা প্রদান করলে তিনিই অবসর গমনের পর অর্থাৎ সাত বছর পর থেকে মাসিক ৬২৩৩০ টাকা হারে টেনশন প্রাপ্ত হবেন।

এমন সকল খবরাখবর পেতে চোখ রাখুন কলেজ ইউনিভার্সিটির পেজে

Leave a Comment